স্যামসাংয়ের নজর ভারতে ফাইভজি সরঞ্জামের বাজারে

স্যামসাংয়ের নজর ভারতে ফাইভজি সরঞ্জামের বাজারে।

চীনা টেলিকম কোম্পানি হুয়াওয়ে যুক্তরাষ্ট্রের পাশাপাশি বিশ্বের অধিকাংশ দেশে নিষেধাজ্ঞার মুখে পড়ায় ফাইভজি সরঞ্জামের বাজারে সুবিধা আদায় করছে কোরীয় টেলিকম কোম্পানি স্যামসাং। ফাইভজি সরঞ্জাম ব্যবসার দৌড়ে এরই মধ্যে কোম্পানিটি হুয়াওয়েকে অতিক্রম করেছে বলে জানা যাচ্ছে। এর মধ্যে ভারতের টেলিকম বাজারে প্রবেশের চেষ্টা করছে স্যামসাং। দেশটি চলতি বছরই বাণিজ্যিকভাবে ফাইভজি নেটওয়ার্ক সেবা চালুর পরিকল্পনা করছে। খবর কোরিয়ান টাইমস।
ভারতের স্মার্টফোন বাজারে চীনা ফোন নির্মাতা কোম্পানিগুলোর সঙ্গে প্রতিযোগিতায় টিকে থাকতে হিমশিম খাচ্ছে স্যামসাং। এবার ফাইভজি নেটওয়ার্ক সরঞ্জাম বাজার দখল করে শোধ নেয়ার জন্য মুখিয়ে আছে কোরীয় টেলিকম জায়ান্টটি।
স্যামসাং ইলেকট্রনিকসের একজন কর্মকর্তা নাম প্রকাশ না করার শর্তে জানিয়েছেন, স্যামসাং ইলেকট্রনিকসের নেটওয়ার্ক ব্যবসা বিভাগের ভাইস প্রেসিডেন্ট জিওন কিউং হুনসহ কয়েকজন নির্বাহী কর্মকর্তা সম্প্রতি ভারত সফর করেছেন। এ ব্যাপারে আর বিস্তারিত কিছু জানাতে রাজি হননি ওই কর্মকর্তা।
তবে কোম্পানির একাধিক সূত্র জানিয়েছে, ফাইভজি নেটওয়ার্ক সরঞ্জাম সরবরাহের বিষয়ে আলাপ করতে গিয়েছিলেন ওই কর্মকর্তারা। সফরে রিলায়েন্স জিও ইনফোকমসহ ভারতের শীর্ষ মোবাইল অপারেটরগুলোর সঙ্গে বৈঠক হয়েছে।
ভারত সরকার আগামী বছর বা তারও পরে ফাইভজি নেটওয়ার্ক সেবা চালুর পরিকল্পনার কথা জানিয়েছিল। তবে সম্প্রতি কর্তৃপক্ষ চলতি বছরই ফাইভজি তরঙ্গ বিক্রির ঘোষণা দিয়েছে। ঠিক এর আগেই ভারতীয় অপারেটররা ফাইভজি নেটওয়ার্কের পাইলট প্রজেক্ট শুরু করার কথা জানায়।
ভারতের সর্ববৃহৎ মোবাইল অপারেটর কোম্পানি ভোডাফোন ইন্ডিয়া। এর পরই আছে ভারতি এয়ারটেল এবং রিলায়েন্স জিও ইনফোকম। রিলায়েন্স জিওর সঙ্গে অংশীদারিত্বের ভিত্তিতে ভারতে ফোরজি নেটওয়ার্ক অবকাঠামো নির্মাণ করেছে স্যামসাং। ফলে ফোরজি ও ফাইভজি কম্প্যাটিবিলিটি বিবেচনায় জিও ফাইভজি নেটওয়ার্কও স্যামসাংয়ের হাত ধরেই চালু করবে বলে আশা করা হচ্ছে।

SHARE

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here