যুক্তরাষ্ট্রে হুয়াওয়ের পৃথক গবেষণা কেন্দ্র

যুক্তরাষ্ট্রে হুয়াওয়ের পৃথক গবেষণা কেন্দ্র।

চীনা জায়ান্ট হুয়াওয়ে যুক্তরাষ্ট্রে তাদের গবেষণা এআরএম ফিউচারউইকে পৃথক করে ফেলছে।

গত মে মাসে প্রতিষ্ঠানটির উপর যুক্তরাষ্ট্রের বাণিজ্য বিভাগ নানান বিধিনিষেধ আরোপের পর এমন সিদ্ধান্ত নিয়েছে বলে জানাচ্ছে সংবাদ সংস্থা রয়টার্স।

এখন থেকে যুক্তরাষ্ট্রে ফিউচারউই টেকনোলজিস ইনকর্পোরেট নামে হুয়াওয়ের লোগো এবং নাম ছাড়াই পরিচালনা হবে বলে বলছে প্রতিষ্ঠানটির এক কর্মী। তবে তিনি নাম প্রকাশ করতে চাননি।

নতুন ইউনিট সম্পর্কে জানতে চাইলে ফিউচারউইয়ের  জেনারেল কাউন্সেল মিলটন ফ্রাজিয়ার কোন মন্তব্য করতে অস্বীকৃতি জানান। এমনকি কোন হুয়াওয়ের মুখপাত্র বা কর্মীও বিষয়টি নিয়ে কথা বলতে চাননি রয়টার্সের সঙ্গে।

হুয়াওয়ে তাদের প্রযুক্তি নিয়ে গবেষণার জন্য বিভিন্ন বিশ্ববিদ্যালয়ের সঙ্গে চুক্তি করেছিল। সেসব বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থী ও শিক্ষকরা বিভিন্ন ধরনের গবেষণা নিয়ে কাজ করেন। এখন নতুন ইউনিট চালুর পর সেই চুক্তিগুলো নতুন করে আবার করতে হবে নাকি সেটাই অব্যাহত থাকবে তার কোন পরিষ্কার ধারণা পাওয়া যাচ্ছে না।

ফিউচারউই সিলিকনভ্যালি ভিত্তিক এআরএম গবেষণা প্রতিষ্ঠান। প্রতিষ্ঠানটির ইতোমধ্যে অন্তত ২১০০ উদ্ভাবনের পেটেন্ট করা রয়েছে। রয়েছে টেলিকমিউনিকেশন ও ফাইভজি নিয়েও প্রতিষ্ঠানটির কয়েকটি পেটেন্ট নিজেদের করা রয়েছে।

বিশেষজ্ঞরা বলছেন, হুয়াওয়ে যুক্তরাষ্ট্রে তাদের উন্নয়ন ধারা অব্যাহত রাখতে এমন সিদ্ধান্ত নিয়েছে। যাতে তাদের প্রযুক্তির গবেষণা ও উন্নয়ন থেমে না যায়।

সূত্রঃ টেকশহর

SHARE

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here