ফেয়ার গ্রুপের পরিচালক নাবিহা রাইদার ইন্তেকাল

মাত্র ২০ বছর বয়সে চলে গেলেন মেধাবী মুখ নাবিহা রাইদা। তিনি বাংলাদেশের অন্যতম প্রধান বেসরকারি বাণিজ্যিক প্রতিষ্ঠান ফেয়ার গ্রুপের চেয়ারম্যান ও ব্যবস্থাপনা পরিচালক রুহুল আলম আল মাহবুবের মেয়ে। ফেয়ার গ্রুপ বাংলাদেশে উচ্চমানসম্পন্ন তথ্যপ্রযুক্তি পণ্য উৎপাদনে অন্যতম শীর্ষ প্রতিষ্ঠান। রাইদা নিজেও ফেয়ার গ্রুপের পরিচালক ছিলেন। গত ৪ জানুয়ারি রাইদা যুক্তরাষ্ট্রের নিউইয়র্কে

ঘুমের মধ্যে হৃদযন্ত্রের ক্রিয়া বন্ধ হয়ে মৃত্যুবরণ করেন। তার আকস্মিক মৃত্যুতে ফেয়ার গ্রুপসহ দেশের তথ্যপ্রযুক্তি অঙ্গনে শোকের ছায়া নেমে এসেছে।

শিক্ষাজীবনে অত্যন্ত মেধাবী রাইদা ঢাকার আমেরিকান ইন্টারন্যাশনাল স্কুল, সিঙ্গাপুরের অস্ট্রেলিয়ান ইন্টারন্যাশনাল স্কুল, স্টামফোর্ড আমেরিকান, যুক্তরাষ্ট্রের মারভেলউড স্কুল থেকে শিক্ষা শেষ করে যুক্তরাষ্ট্রেই উচ্চশিক্ষায় অধ্যয়নরত ছিলেন। শিক্ষাজীবনের প্রতিটি পর্যায়েই তিনি সাফল্যের দৃষ্টান্ত স্থাপন করেছেন।

গতকাল বুধবার সকালে রাইদার মরদেহ ঢাকায় পৌঁছে। দুপুরে জানাজার জন্য গুলশানের আজাদ মসজিদে নেওয়া হলে বিশিষ্টজন সেখানে ছুটে যান। তাদের মধ্যে ছিলেন সাবেক মন্ত্রী ও ওয়ার্কার্স পার্টির সভাপতি রাশেদ খান মেনন, রবির ব্যবস্থাপনা পরিচালক ও সিইও মাহতাব উদ্দিন আহমেদ, বিটিআরসির সাবেক ভাইস চেয়ারম্যান আহসান হাবীব, ট্রানশান বাংলাদেশের ব্যবস্থাপনা পরিচালক রেজওয়ানুল হক, ওয়ান ব্যাংকের ব্যবস্থাপনা পরিচালক ফখরুল আলমসহ তথ্যপ্রযুক্তি খাতের বিভিন্ন প্রতিষ্ঠান ও সংগঠনের কর্মকর্তারা। এ ছাড়া ফেয়ার গ্রুপের সর্বস্তরের কর্মচারী-কর্মকর্তারা জানাজায় অংশ নেন।

আজাদ মসজিদ থেকে রাইদার মরদেহ ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় গ্রামের বাড়িতে নেওয়া হয়। পারিবারিক সূত্র জানায়, ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় দ্বিতীয় দফা জানাজা শেষে মরদেহ নেওয়া হবে নরসিংদীতে ফেয়ার একাডেমিতে। তৃতীয় জানাজা শেষে সেখানে পারিবারিক কবরস্থানে তার লাশ দাফন করা হবে।

SHARE

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here