চীনে ম্যাক প্রো তৈরি করবে অ্যাপল

চীনে ম্যাক প্রো তৈরি করবে অ্যাপল।

মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র থেকে সরিয়ে চীনে নতুন ম্যাক প্রো ডেস্কটপ উৎপাদন করবে অ্যাপল, বিষয়টির সঙ্গে জড়িত এক ব্যক্তির বরাত দিয়ে এমনটাই জানিয়েছে ওয়াল স্ট্রিট জার্নাল।

সম্প্রতি চীন থেকে আমদানিকৃত প্রায় সব পণ্যের ওপর নতুন শুল্ক আরোপের হুমকি দিয়ে আসছে মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের প্রসাশন। শুল্ক এড়াতে অ্যাপল এবং অন্যান্য প্রতিষ্ঠানগুলোকে যুক্তরাষ্ট্রে পণ্য উৎপাদনের জন্য চাপ দেওয়া হচ্ছে বলে প্রতিবেদনে জানিয়েছে রয়টার্স।

ট্রাম্প প্রসাশনের চাপের মধ্যেও উল্টো পথে হাঁটছে অ্যাপল। ম্যাক প্রো’র উৎপাদন যুক্তরাষ্ট্র থেকে সরিয়ে চীনে নিচ্ছে প্রতিষ্ঠানটি।

আগের সপ্তাহেই মূল সরবরাহকারী প্রতিষ্ঠানগুলোকে ১৫ থেকে ৩০ শতাংশ উৎপাদন চীন থেকে দক্ষিণ-পশ্চিম এশিয়ায় সরানোয় খরচ পর্যালোচনা করতে বলে অ্যাপল।

ডি. এ. ডেভিডসন বিশ্লেষক টম ফোর্টে বলেন, “যদি সত্য হয়, আমার ধারণা অ্যাপল অনেক বেশি আত্মবিশ্বাসী যে নিকট ভবিষ্যতেই মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র এবং চীনের মধ্যকার বাণিজ্যিক দ্বন্দ্বের সমাধান হবে।”

অ্যাপলের মূল বাজার এবং পণ্য উৎপাদন কেন্দ্রগুলোর মধ্যে একটি চীন। চলতি বছরের মার্চ মাসে শেষ হওয়া প্রান্তিকে প্রতিষ্ঠানের আয়ের ১৮ শতাংশ এসেছে চীন থেকে।

সাধারণত সৃজনশীল পেশাদাররা ব্যবহার করেন ছয় হাজার মার্কিন ডলারের ম্যাক প্রো। ডিভাইসটিতে গ্রাহকের চাহিদাও কমছে দিন দিন।

ম্যাক প্রো মেশিনের বিক্রির সংখ্যা জানায়নি অ্যাপল। প্রতিষ্ঠানের ম্যাক লাইনের অংশ এই ডেস্কটপের বিক্রি ২০১৮ সালে এই লাইনের মোট বিক্রির ১০ শতাংশের কম। ২০১৮ সালে প্রায় এক কোটি ৮০ লাখ ম্যাক বিক্রি করেছে অ্যাপল। আর আইফোন বিক্রি হয়েছে ২১ কোটি ৮০ লাখ।

নতুন ম্যাক প্রো’র উৎপাদন নিয়ে অ্যাপলের এক মুখপাত্র বলেন, “আমাদের সব পণ্যের মতো নতুন ম্যাক প্রো নকশা এবং প্রকৌশল করা হয়েছে ক্যালিফোর্নিয়ায় এবং এটি তৈরিতে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রসহ বিভিন্ন দেশ থেকে যন্ত্রাংশ আনা হয়। শেষ জোড়া দেওয়ার কাজটি শুধু উৎপাদন প্রক্রিয়ার একটি অংশ।”

আগে টেক্সাসে চুক্তিবদ্ধ প্রস্তুতকারক প্রতিষ্ঠান ফ্লেক্স লিমিটেডের মাধ্যমে ম্যাক প্রো বানাতো অ্যাপল। চীনে ডেস্কটপ উৎপাদন করার সিদ্ধান্ত নেওয়ায় ধরে নেওয়া যেতে পারে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রে উৎপাদনের ফলে প্রতিষ্ঠানটি যে কর সুবিধা পেতো সেটি সম্ভবত শেষ হতে যাচ্ছে।

ফোর্টে বলেন, “এটি আমাদের মনে করিয়ে দিচ্ছে যে, চীনে উৎপাদন একটি কম খরুচে বিকল্প হতে পারে এবং মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রে নতুন কাঠামো বানানোর চেয়ে বর্তমান কাঠামো থেকেই লাভবান হওয়া যেতে পারে।”

নতুন ম্যাক প্রো উৎপাদন করতে কোয়ান্টা কম্পিউটারের সঙ্গে চুক্তি করেছে মার্কিন প্রযুক্তি জায়ান্ট প্রতিষ্ঠানটি। এছাড়াও শাংহাইয়ের নিকটবর্তী একটি কারখানায় উৎপাদন বাড়ানো হচ্ছে।

বিডিনিউজ২৪.কম

SHARE

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here