উপজেলায় হচ্ছে ডিজিটাল নিরাপত্তা ইউনিট

উপজেলায় হচ্ছে ডিজিটাল নিরাপত্তা ইউনিট।

সারাদেশে জনগণকে দ্রুত ডিজিটাল নিরাপত্তা সেবা দিতে নতুন উদ্যোগ নিচ্ছে সরকার।

এতে দেশের প্রতিটি উপজেলায় স্থাপন করা হবে ডিজিটাল নিরাপত্তা ইউনিট।

বুধবার ঢাকায় টেলিকম অধিদপ্তর মিলনায়তনে সাইবার থ্রেট ডিটেকশন অ্যান্ড রেসপন্স প্রকল্পের অগ্রগতি, চ্যালেঞ্জ নিরসন ও ভবিষ্যত করণীয় নিয়ে এক বৈঠকে এ তথ্য জানান ডাক ও টেলিযোগাযোগ মন্ত্রী মোস্তাফা জব্বার।

যেকোন মূল্যে জনগণের ডিজিটাল নিরাপত্তা নিশ্চিত করার কথা উল্লেখ করে মন্ত্রী বলেন, বাংলাদেশকে ডিজিটালাইজড করার পাশাপাশি দেশের নারী ও শিশুসহ সকল নাগরিকদের ডিজিটাল নিরাপত্তা দেওয়ার দায়িত্বও সরকারের। প্রযুক্তি দিয়েই প্রযুক্তি অপরাধ মোকাবেলা করতে সরকার সর্বাত্মক সক্ষমতা অর্জন করেছে।

ডিজিটাল নিরাপত্তা নিশ্চিতে ডিজিটাল নিরাপত্তা সংস্থা এবং আইন প্রয়োগকারী সংস্থাসহ সংশ্লিষ্ট সবাইকে একসঙ্গে কাজ করার নির্দেশ দিয়ে তিনি বলেন, ডিজিটাল নিরাপত্তা আইন বাংলাদেশ প্রথম করবে এটা ২০০৯ সালে কেউ ভাবেনি। ডিজিটাল জগৎ তার পরিধি এবং তার নিরাপত্তা একটি বিশাল বিষয়। এটা নিয়ে বিতর্ক করার সুযোগ নেই। একদিকে ইন্টারনেটে দক্ষতা অর্জন করতে বলা হচ্ছে, অন্যদিকে তাদের নিরাপত্তা দিতে না পারলে সেটা উল্টো ফল দেবে।

‘দেশের প্রায় প্রতিটি ইউনিয়নে ইন্টারনেটের ব্রডব্যান্ড সংযোগ পৌঁছে গেছে। তাই সেখানে ডিজিটাল নিরাপত্তা নিশ্চিত করতে সংশ্লিষ্টদের উপজেলা পর্যন্ত কার্যক্রম পরিচালনার জন্য ডিজিটাল নিরাপত্তা ইউনিট স্থাপন করতে হবে। এই বিষয়ে শিগগিরই প্রয়োজনীয় উদ্যোগ গ্রহণ করা হবে’ জানান মন্ত্রী।

মোস্তাফা জব্বারের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত ওই বৈঠকে টেলিযোগাযোগ সচিব অশোক কুমার বিশ্বাস, ডিজিটাল নিরাপত্তা এজেন্সির মহাপরিচালক মো: রাশেদুল ইসলাম, বিটিসিএল মহাপরিচালক ইকবাল মাহমুদ, টেলিকম অধিদপ্তরের মহাপরিচালক মো: মহসিনুল আলম, টেলিটক এমডি মো: সাহাব উদ্দিন, আইসিটি বিভাগের সাইবার নিরাপত্তা বিষয়ক পরিচালক তারেক এম বরকত উল্লাহ এবং সংশ্লিষ্ট প্রকল্পের পরিচালক মো: রফিকুল মতিন উপস্থিত ছিলেন।

এছাড়া ছিলেন ডিজিএফআই, এনএসআই, র‌্যাব, বিটিআরসি, বাংলাদেশ ব্যাংক, এনটিএমসি, এসবিসহ সংশ্লিষ্ট বিভিন্ন সংস্থা ও প্রতিষ্ঠানের প্রতিনিধিরাও।

SHARE

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here