ইউটিউবে যেভাবে এড়াবেন বাফারিং

ইউটিউবে যেভাবে এড়াবেন বাফারিং।

অনলাইনে ভিডিও দেখার জনপ্রিয় প্ল‍্যাটফর্ম ইউটিউব।

বিনোদনের জন্য অনেকেই প্ল্যাটফর্মটিতে ঘণ্টার পর ঘণ্টা কাটিয়ে দেন।  তবে ভিডিওগুলো ধীরগতিতে চললে তা উল্টো বিরক্তির সৃষ্টি করে।

কিছু পদক্ষেপ নিয়ে এই সমস্যা থেকে মুক্তি পাওয়া যায়। চলুন তাহলে জেনে নেওয়া যাক বাফারিং এড়ানোর উপায়।

রেজুলেশন কমানো
এইচডি (৭২০ পি) ও ফুল এইচডি (১০৮০ পি) মানের ভিডিও স্ট্রিমিংয়ের জন্য দ্রুত গতির ইন্টারনেট থাকতে হবে। কিন্তু অনেকের ইন্টারনেটের গতি কম থাকে। এক্ষেত্রে ইউটিউব ভিডিওর রেজুলেশন কমিয়ে বাফারিং এড়ানো সম্ভব। গতি অনুযায়ী এই রেজুলেশন নির্বাচন করতে হবে।
এজন্য ব্রাউজার কিংবা অ্যাপ হতে ভিডিও দেখার সময় ভিডিওর সেটিংস আইকনে ক্লিক করে রেজুলেশন কমিয়ে নিতে হবে।

ব্রাউজার যাচাই
পিসিতে ব্রাউজার ব্যবহার করে ইউটিউব দেখার সময় ইন্টারনেটের গতি ঠিক থাকা সত্ত্বেও অনেক সময় বাফারিং হয়। এটি সমাধানে ব্রাউজারের ডেটা ও ক্যাশ ফাইল ক্লিয়ার করতে হবে। অপশনটি ব্রাউজারের সেটিংসে পাওয়া যাবে।
এছাড়া, ইন্টারনেট ব্রাউজারটিকে সবসময় হালনাগাদ সংস্করণে ব্যবহার করতে হবে।

মোবাইল অ্যাপের ডেটা মুছে ফেলা
অ্যান্ড্রয়েডে ইউটিউব অ্যাপ দীর্ঘদিন ব্যবহারের ফলে সেটি অনেক ডেটা জমা করে ফেলে। এর দরুন ইউটিউব ভিডিও চলতে ধীরগতি হতে পারে। এই সমস্যা সমাধানে ইউটিউব অ্যাপের ডেটা মুছে ফেলতে হবে কিংবা অ্যাপটিকে একবার আন-ইন্সটল করে পুনরায় নতুন  করে ইন্সটল করে নিলে সমস্যা সমাধান হবে।

ইন্টারনেটের গতি যাচাই
বেশিরভাগ ক্ষেত্রেই ধীরগতির ইন্টারনেটের কারণে ইউটিউব ভিডিও ঠিকঠাক চলে না কিংবা চলতে চলতে থেমে যায় (বাফারিং)। সেক্ষেত্রে ইন্টারনেটের গতি বাড়িয়ে সমস্যাটি সমাধান করা যেতে পারে। এ জন্য উচ্চগতির ইন্টারনেট সার্ভিস নিতে হবে। গতি ঠিক থাকা সত্ত্বেও ওয়াইফাইতে স্পিড কমে গেলে তা সমাধান করে নিতে হবে। এটির বিস্তারিত পাওয়া যাবে এই প্রতিবেদনে।

SHARE

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here